ইভটিজিংয়ের দায়ে চকরিয়া ছাত্রলীগ নেতা তারেকের এক মাসের জেল

ইভটিজিংয়ের দায়ে চকরিয়া ছাত্রলীগ নেতা তারেকের এক মাসের জেল

আইন ও প্রশাসন প্রধান সংবাদ স্থানীয় বার্তা
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    38
    Shares

সিডব্লিউ রিপোর্ট::

স্কুল ছাত্রীকে উপর্যুপরি শ্লীলতাহানির দায়ে চকরিয়া পৌর ছাত্রলীগ নেতা সাজ্জাদ মোস্তফা তারেককে এক মাসের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। গতকাল ২৬ এপ্রিল (সোমবার) চকরিয়া পৌর এলাকার থানা সেন্টার থেকে রাত সাড়ে নয়টায় ইভটিজিংয়ের অভিযোগে তাকে আটক করা হয়।

এর আগে গত ২৫ এপ্রিল ভুক্তভোগী ওই স্কুল ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ইউএনও বরাবর ইভটিজিংয়ের একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এই অভিযোগের ভিত্তিতে চকরিয়া থানাকে তদন্ত পূর্বক যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করে পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ শামসুল তাবরীজ। চকরিয়া থানা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হয়ে তাকে আটক করতে সক্ষম হয়। আটক পরবর্তী চকরিয়া থানা সাজ্জাত মোস্তফা তারেককে ভ্রাম্যমাণ আদালতে প্রেরণ করে।

সেখানে তারেক নিজের অপরাধ স্বীকার করে নিলে ভ্রাম্যমান আদালত তাকে এক মাসের জেল দন্ড প্রদান করে বলে কক্সবাজারওয়ার্ল্ড ডটকম কে নিশ্চিত করেছেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানভীর হোসেন।

ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রীর মামা দিদারুল ইসলাম টিটু জানান- অভিযুক্ত তারেক দীর্ঘদিন ধরে তার ভাগ্নিকে স্কুলে যাওয়ার পথ গতিরোধ করে উত্ত্যক্ত করে আসছেন। তারা পারিবারিক ভাবে তারেককে বেশ কয়েকবার বারণ করলেও সে নিয়মিত বিরক্ত করে আসছে বলেও জানান।

এদিকে অভিযুক্ত বখাটে তারেকের বিষয়ে সাংগঠনিক কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে কীনা জানতে চাইলে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম জানান- ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হয়ে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ভুক্তভোগীর পরিবার সরাসরি অভিযোগ দিলে বা ঘটনার প্রমাণ দিলে সাংগঠনকি ব্যবস্থা নিতে একটু সুবিধা হয়।

উল্লেখ্য, ছাত্রলীগ নেতা তারেকের বিরুদ্ধে ইভটিজিংয়ের একাধিক অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে। সে চকরিয়া পৌর এলাকার ৪ নং ওয়ার্ডের মৃত আবছার মুন্সির ছেলে।