ইয়াবার ছোঁয়ায় কোটিপতি বনেছে পলিথিন বিক্রেতা যুবক জুয়েল!

ইয়াবার ছোঁয়ায় কোটিপতি বনেছে পলিথিন বিক্রেতা যুবক জুয়েল!

আইন ও প্রশাসন মাদক স্থানীয় বার্তা
  • 139
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    139
    Shares

নিজস্ব সংবাদদাতা::

বেশভূষায় বেশ আভিজাত্য। বয়স পঁচিশ ছুইছুই। দেখলে মনে হবে কোনো কোটিপতি পিতার একমাত্র ছেলে। কিন্তু বাস্তবতা হলো- এইতো সেদিনও মা কাজ করতো অন্যের ঘরে গৃহ পরিচারিকা হিসেবে। পিতা মনিরুল আলম মনিয়া একটি চায়ের দোকানে কাজ করতো নাম মাত্র মাইনেতে। আর ছেলে জুয়েল খরুলিয়া বাজারে পলিথিন বিক্রি করে কোনো রকম দিনাতিপাত করতো। এভাবেই চলতো পিতা মাতা ও ছেলের তিন জনের সংসার।

সম্প্রতি দেখা গেছে- সেই জুয়েল এখন বিলাসবহুল গাড়ির মালিক। একের পর এক গাড়ি পরিবর্তন করে দাবড়িয়ে বেড়ায় সারা শহর থেকে গঞ্জে। রয়েছে নির্মানাধীন বাড়ি। চলছে বাড়িতে নকশা আঁকার কাজও। সব মিলিয়ে এযেনো আলাদিনের যাদুর কুপির ছোঁয়া।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়- জুয়েলের পিতা মনিয়া এখনও ছোট্ট একটি তরকারি ব্যবসার দোকান দিয়েছে। আর সেটা দিয়ে কোনো রকম আয় করছেন। অন্যদিকে জুয়েল ও তার মা যৌথভাবে ইয়াবা বিক্রি করে চলেছে খরুলিয়া এলাকায়। খরুলিয়ার এক জনপ্রতিনিধির মাদক সিন্ডিকেটে জুয়েলের অবস্থান। ওই সিন্ডিকেটের সহায়তায় নামী দামী মোটরা সাইকেল ক্রয় করে ইয়াবা পাচারের কাজে ব্যবহার করছে জুয়েল। আর তার মা এলাকায় ইয়াবা সেবীদের নিকট খুৃচরা বিক্রি করে থাকে। মাঠ ঘুরে এমন তথ্যই জানা গেলো জুয়ের ও তার মায়ের ইয়াবা সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে।

তদন্তে আরও জানা যায়- এভাবে মাদক ব্যবসা করতে গিয়ে জুয়েল ও তার মা একাধিকবার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নজরে এসেছিলো। তার সিন্ডিকেটের তৎপরতায় বারবার ছাড় পেয়ে যাচ্ছে। এভাবেই নির্বিঘ্নে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে মা ছেলের এই সিন্ডিকেট।