খরুলিয়ায় রাতভর ডাকাতি, ভাঙচুর : আটক ৪

আইন ও প্রশাসন স্থানীয় বার্তা
  • 37
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    37
    Shares

বার্তা পরিবেশক::

কক্সবাজার সদরের খরুলিয়ার বাজারস্থ ঘাটপাড়া সড়কে রাতভর ডাকাতি, দোকানপাট ভাঙচুর এবং জমি দখলের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) দিবাগত রাত ৩টার দিকে কক্সবাজার শহর কেন্দ্রীক একটি কিশোর গ্যাং এর নেতৃত্বে এই ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশের দ্রুত উপস্থিতির কারণে সংঘর্ষ ও রক্তপাত এড়ানো সম্ভব হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়েছে ৪ জনকে। অন্যদিকে আটকদের ছাড়িয়ে নিতে কিশোর গ্যাং এর নেতৃত্বে থাকা রাজনৈতিক দলের এক শীর্ষ নেতা থানায় তদবির শুরু করেছে বলে জানা গেছে। পাশাপাশিও পুলিশও ৪জন আটকের কথা স্বীকার করলেও তাদের নাম পরিচয় প্রকাশ করছে না গণমাধ্যমের কাছে। তবে প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে আটক কয়েক জনের নাম পাওয়া গেছে। তারা হলেন- কিশোর গ্যাং লিডার ইব্রাহিম প্রকাশ ভুলু, ফারুক প্রকাশ ক্ষুর ফারুক এবং আশরাফ উল্লাহ।

জানা যায়- খরুলিয়া ঘাটপাড়ার মৌলভী হাফেজ আহম্মদের সন্তানদের পরিবারের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমির বিরোধ চলে আসছিলো। এই বিরোধের জের ধরে কক্সবাজার শহরের সব্বির আহমদের পুত্র ইব্রাহিম প্রকাশ ভুলুর নেতৃত্বে কিশোর গ্যাং এর ১৫/২০ জন যুবক আকতার আহমদের পুত্র জসিম উদ্দীনের দোকানে হামলা চালায়।

জসিমের ভাষ্যমতে- মৌলভী হাফেজ আহাম্মদের ছেলে মুহিব উল্লাহ এবং মেয়ে রাবেয়া বেগমের নিকট হতে জসিম ১২ কড়া জমি ক্রয় করেছিলো এবং ওই জমিতে দোকান নির্মাণ করেছিলো। এখন তাদের ভাই মৌলানা এমদাদ উল্লাহর সন্তানরা কোনো ধরণের প্রমাণ ছাড়াই ওই জমির মালিকানা দাবি করছে। এর জের ধরে এমদাদ উল্লাহর ছেলে এরশাদ উল্লাহ, আশেক উল্লাহ, আরশাদ উল্লাহ, এজাজ উল্লাহ ও আসাদ উল্লাহসহ কক্সবাজার থেকে কিশোর গ্যাং ভাড়া করে এনে জসিমের দোকানে হামলা চালায়।

স্থানীয় মেম্বার আব্দুর রশিদ জানান- এমদাদ উল্লাহর ছেলেরা গভীর রাতে জসিমের দোকানে হামলা চালায় এবং ভাঙচুর করে। এমনকি তারা সদলবলে এসে দোকানটি দখল নিয়ে দোকানের মুখে রাতারাতি দেওয়াল তুলে দেওয়ার চেষ্টা করে। এসব করার সময় রাতে চিৎকার শোরগোল দেখতে পেলে এলাকার চৌকিদার পুলিশের জরুরি সেবায় ফোন করে জানায়। এর প্রেক্ষিতে কক্সবাজার সদর মডেল থানা একদল পুলিশ পাঠিয়ে ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আনে। এবং ঘটনাস্থল থেকে ৪জনকে আটক করে নিয়ে যায়।

এবিষয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুনিরুল গীয়াস জানান- খরুলিয়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে। জড়িতদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।