চকরিয়ায় বসত বাড়িতে আগুন লেগে ঘুমন্ত ৩ ভাই-বোন পুড়ে অঙ্গার

আইন ও প্রশাসন উপজেলা
  • 41
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    41
    Shares

শাহীন মাহমুদ রাসেল:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগে বসতঘরে ঘুমন্ত অবস্থায় তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (১৫ মার্চ) দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের উত্তর হারবাং সাবানঘাটা গ্রামের জাকের হোসেন কাঠ মিস্ত্রির ঘরে আগুন লেগে মর্মান্তি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। মুহূর্তেই সেই আগুন পুরো ঘরে ছড়িয়ে পড়ে।

এসময় বয়স্করা বের হয়ে প্রাণে বাঁচলেও অগ্নিদগ্ধে মারা যায় জাকের হোসেনের ২ মেয়ে ও এক শিশু সন্তান। নিহত তিন শিশুর নাম মো. জাহেদুল ইসলাম (১২), মীম আক্তার (১০) ও মিতু মনি (৮)।

স্থানীয়রা জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সেমি পাকা বাড়িটির একটি কক্ষ পুড়ে যাওয়ার সময় পরিবার সদস্যরা ঘুমন্ত অবস্থায় ছিল। ঘুমন্ত তিন শিশু কক্ষটির থেকে বের হতে পারেননি। বাড়ির অন্য সদস্য আরেকটি কক্ষে ছিলেন বলে তারা প্রাণে বেঁচে যান। এতে কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

তারা জানান, আগুন লাগার পরপরই ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে যায়নি। এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না আগুনের সঠিক সূত্রপাত কোথা থেকে।

এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন হারবাং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরান। তিনি বলেন, ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে তিনটি শিশু পুড়ে মারা গেছে শুনে তিনি দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, হারবাং ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের সাবানঘাটা গ্রামে একটি বাড়ি আগুনে পুড়ে যাওয়ার খবর পেয়ে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত পুলিশের একটি টিমকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

চকরিয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর স্টেশন অফিসার সাইফুল হাসান বলেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগার খবর পেয়ে আমাদের টিম সেখানে পাঠাই। কিন্তু ঘটনাস্থল দুর্গম হওয়াতে আমাদের গাড়ি সেখানে পৌঁছেনি। তবে আমাদের দমকল বাহিনী ও স্থানীয়রা প্রায় এক ঘন্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।