চকরিয়া পৌরসভা ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী ফজল করিম চৌধুরীর নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ

আইন ও প্রশাসন চট্টগ্রাম পৌরসভা মুক্তমত
  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    20
    Shares

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

আসন্ন ১১এপ্রিল চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর পদপ্রার্থী বিশিষ্ট সমাজসেবক আলহাজ্ব কবিরাজ ফজল করিম চৌধুরী তার এলাকাবাসীর দোয়া ও সমর্থন কামনা করে নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেছেন। গতকাল সোমবার (২২মার্চ) সকাল ১০টায় নিজ বাসভবনে এলাকার সমস্যা সম্ভাবনার কথা তুলে ধরে স্থানীয় মুরব্বী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে তিনি বক্তব্যের মাধ্যমে এ ইশতেহারটি উপস্থাপন করেন। এতে তিনি যা উল্লেখ করেছেন তা হুবুহু তুলে ধরা হয়েছে।

যথাক্রমে-

(১) ৪নং ওয়ার্ডের সন্ত্রাস দমন, মাদক নিয়ন্ত্রণ, নারী নির্যাতন, বাল্য বিবাহ বন্ধ, শিশু নির্যাতন, ভবঘুরে পাগল ভিক্ষুকদের জন্য পূনর্বাসনের জন্য সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন সাহায্য-সহযোগিতামূলক সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করে সহযোগিতা নিশ্চিত করার পাশাপাশি নগর স্বতন্ত্র কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন বাস্তবায়ন করব।

(২) নিজের পৌরসভার প্রাপ্ত বেতন প্রতিবন্ধী, বয়স্ক, এতিম অহসায় মানুষের কল্যাণে বিতরণ করব।

(৩) জন্ম সনদ, চেয়ারম্যান সনদ বিনামূল্যে এবং গরীব অসহায় এতিম অনাথদের জন্য আমার নিজস্ব ফান্ড থেকে বহন করব।

(৪) ৪নং ওয়ার্ডকে হেলদী ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তোলার জন্য সবসময় বর্জ্য পরিস্কার, রাস্তা সংস্কার নালা ব্যবস্থা আধুনিকরণ, রাস্তার ইলেক্ট্রনিক্স লাইটের সু-ব্যবস্থা করব।

(৫) তরুণদের জন্য প্রযুক্তি নির্ভর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করব এবং ছাত্র ও যুব সমাজের মানসিক বিকাশে খেলার মাঠের ব্যবস্থা করব।

(৬) এলাকার সকল পাড়া-মহল্লা নিরাপত্তার স্বার্থে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করব।

(৭) ৪নং ওয়ার্ডাবাসীর দৈনন্দিন সমস্যা জানার জন্য নিজে উপস্থিত থেকে মাসিক মতবিনিময় সভার আয়োজন করব।

(৮) নাগরিকগণ জরুরী প্রয়োজনে সবসময় কাউন্সিলর মহোদয়কে যেনো কাছে পেতে পারে; এই জন্য আমার অফিস বাসা সকলের জন্য উন্মুক্ত করে দিব। এবং প্রত্যেকটি কাজ পারস্পারিক সহযোগিতা সমন্বয়ের মাধ্যমে করব।

(৯) ৪নং ওয়ার্ডের সকল সম্প্রদায় তাদের নিজ নিজ ধর্ম পালন তথা সামাজিক অনুষ্ঠানে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তায় আইন শৃংখলা বাহিনীর সার্বিক সহযোগিতার ব্যবস্থা করব।

(১০) একটি নীতিনিষ্ট সমাজ গড়ে তোলার জন্য দুষ্টের দমন, শিষ্টের পালন, ছোটদের স্নেহ এবং বড়দের সমীহ করা বাঞ্চনীয়। হাজার বছরের ঐতিহ্য পূনঃপ্রতিষ্ঠা করার জন্য আমি নিয়মিত কাজ করে যাব। যে কোন বিপদাপন্ন নাগরিক যে কোন প্রয়োজনে কিংবা পরামর্শের জন্য দিনরাত যে কোন হেল্প লাইনের সহযোগিতা নিতে পারবে।

তিনি পরিশেষে প্রিয় এলাকাবাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, পরিকল্পনা কথা বলতে গেলে অনেক বলতে পারবো। কিন্তু কথা বলার চেয়ে আপনাদের দরকার পড়বে একজন মানুষের যিনি কিনা সুনামের সাথে সততা এবং ন্যায় পরায়নতার সংমিশ্রণ ঘটিয়ে সকল কর্ম সম্পাদনের যোগ্যতা রাখে। আপনারা দয়া করে অন্যান্য কাউন্সিলর প্রার্থীদেরও খোঁজ খবর নেন এবং সেখান থেকে যাকে যোগ্য মনে করবেন তাকেই আপনার পবিত্র আমানত ভোটটি দিয়ে নির্বাচিত করে এলাকার সুখে-দুঃখে পাশে থাকার সুযোগ করে দিবেন। আর আমি নগন্য খাদেমকে পছন্দ হলে আমার মার্কায় ভোট দিয়ে আপনাদের সেবা করার সুযোগ করে দিবেন। ইনশা’আল্লাহ কথা দিচ্ছি- সর্বশক্তি দিয়ে ঈমানের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করব।